নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয়

কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালো আছেন। আজকে আমি আপনাদেরকে বলবো, যদি আপনারা আপনাদের নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে কি করবেন। তো চলুন শুরু করা যাক।

নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয়

নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় জেনে নিন। আপনার মোবাইল থেকে *167# ডায়াল করে নিন এরপর নিজেই কোড রিসেট করে ফেলুন। এই কাজটি খুবি সোজা। ট্রাই করে দেখতে পারেন।

নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন:

  1. নগদ অ্যাপটি খুলুন এবং “আমার অ্যাকাউন্ট” এ ক্লিক করুন।
  2. “কোড ভুলে গেছেন?” অপশনে ক্লিক করুন।
  3. আপনার নগদ অ্যাকাউন্টের মোবাইল নম্বর এবং আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর প্রবেশ করুন।
  4. “সাবমিট” বোতামে ক্লিক করুন।

আপনার মোবাইল নম্বর এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর সঠিক হলে, আপনাকে একটি নতুন কোড পাঠানো হবে। নতুন কোডটি আপনার নগদ অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করুন এবং আপনার অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস করুন।

যদি আপনি আপনার মোবাইল নম্বর বা জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর মনে করতে না পারেন, তাহলে আপনি নগদ গ্রাহক সেবা কেন্দ্রে যোগাযোগ করতে পারেন।

নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয়ের কিছু অতিরিক্ত টিপস:

  • আপনার নগদ অ্যাকাউন্টের কোডটি একটি নিরাপদ স্থানে সংরক্ষণ করুন।
  • আপনার কোডটি আপনার সাথে শেয়ার করবেন না।
  • আপনার কোডটি নিয়মিত পরিবর্তন করুন।

নগদ অ্যাকাউন্টের কোড ভুলে গেলে আপনার অ্যাকাউন্টে লগ ইন করতে সমস্যা হতে পারে। তাই আপনার কোডটি সঠিকভাবে সংরক্ষণ করা এবং নিয়মিত পরিবর্তন করা গুরুত্বপূর্ণ।

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার জন্য নিম্নলিখিত নিয়ম অনুসরণ করুন:

মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে

  1. আপনার মোবাইলে নগদ অ্যাপটি খুলুন।
  2. “প্রোফাইল” ট্যাবে যান।
  3. “ব্যক্তিগত তথ্য” ট্যাবে যান।
  4. যে তথ্যটি আপনি হালনাগাদ করতে চান তা পরিবর্তন করুন।
  5. “আপডেট করুন” বোতামে ক্লিক করুন।

ওয়েবসাইটের মাধ্যমে

  1. আপনার কম্পিউটারে নগদ ওয়েবসাইটে যান।
  2. “প্রবেশ করুন” বোতামে ক্লিক করুন।
  3. আপনার মোবাইল নম্বর এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করুন।
  4. “প্রোফাইল” ট্যাবে যান।
  5. যে তথ্যটি আপনি হালনাগাদ করতে চান তা পরিবর্তন করুন।
  6. “আপডেট করুন” বোতামে ক্লিক করুন।

নগদ এজেন্টের মাধ্যমে

  1. আপনার নিকটস্থ নগদ এজেন্টের দোকানে যান।
  2. আপনার নগদ একাউন্টের পিন দিয়ে লগ ইন করুন।
  3. এজেন্টকে বলুন যে আপনি আপনার নগদ একাউন্টের তথ্য হালনাগাদ করতে চান।
  4. এজেন্ট আপনার নির্দেশাবলী অনুসরণ করে আপনার তথ্য হালনাগাদ করবে।

আপডেটযোগ্য তথ্য

আপনি নিম্নলিখিত তথ্য হালনাগাদ করতে পারেন:

  • আপনার নাম
  • আপনার জন্ম তারিখ
  • আপনার লিঙ্গ
  • আপনার ঠিকানা
  • আপনার মোবাইল নম্বর
  • আপনার ইমেল ঠিকানা
  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর
  • আপনার ছবি

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার সুবিধা

আরো পড়ুনঃ  বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ভোটার আইডি কার্ড চেক

আপনার নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করলে আপনি নিম্নলিখিত সুবিধাগুলি উপভোগ করতে পারবেন:

  • আপনার একাউন্টের তথ্য সর্বদা সঠিক থাকবে।
  • আপনি নতুন সুবিধা এবং অফারগুলিতে অ্যাক্সেস পাবেন।
  • আপনার একাউন্টটি আরও নিরাপদ হবে।

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার সময় করণীয়

আপনার নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার সময় নিম্নলিখিত বিষয়গুলি মনে রাখবেন:

  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর এবং ছবি হালনাগাদ করা বাধ্যতামূলক।
  • আপনার অন্যান্য তথ্য যেমন আপনার নাম, জন্ম তারিখ, লিঙ্গ, ঠিকানা এবং মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করতে চাইলে তা করতে পারেন।
  • আপনার ইমেল ঠিকানা হালনাগাদ করলে আপনি নগদ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে সক্ষম হবেন।

এইভাবে নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করলে  নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় মনে থাকবে। আশা করি এই তথ্যটি আপনার কাজে লাগবে।

Read More: GP Internet Offer 30 Days

নগদ একাউন্টের হেল্প লাইন

নগদ একাউন্টের হেল্প লাইন হল 16161

নগদ একাউন্টের হেল্প লাইন হল 16161। এই নাম্বারে ফোন করে আপনি আপনার নগদ একাউন্টের যেকোনো সমস্যার সমাধান পেতে পারেন। হেল্প লাইনে কল করার সময় আপনার কাছে আপনার নগদ একাউন্টের নাম্বার এবং পিন নম্বর থাকতে হবে।

নগদ একাউন্টের হেল্প লাইনে আপনি যেসব সমস্যার সমাধান পেতে পারেন তার মধ্যে রয়েছে:

  • আপনার নগদ একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে
  • আপনার নগদ একাউন্টের ব্যালেন্স চেক করতে
  • আপনার নগদ একাউন্ট থেকে টাকা তোলার জন্য
  • আপনার নগদ একাউন্ট থেকে টাকা পাঠানোর জন্য
  • আপনার নগদ একাউন্টের কার্ড হারিয়ে গেলে
  • আপনার নগদ একাউন্টের সাথে সম্পর্কিত যেকোনো অভিযোগ

নগদ একাউন্টের হেল্প লাইনে কল করার পাশাপাশি আপনি নগদ ওয়েবসাইট বা অ্যাপের মাধ্যমেও আপনার সমস্যার সমাধান পেতে পারেন। নগদ ওয়েবসাইটে আপনি একটি অনলাইন চ্যাট বক্সের মাধ্যমে আপনার সমস্যার কথা বলতে পারেন। নগদ অ্যাপে আপনি একটি মেসেজ পাঠিয়ে আপনার সমস্যার কথা জানাতে পারেন। আপনি যদি নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে কি করবেন তা না জানেন তাহলে হেল্পলাইনে কল দিতে পারেন। নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় কি উপরের থেকে জানুন।

নগদ একাউন্টের হেল্প লাইনের সময়সীমা হল সকাল ৯টা থেকে রাত ১১টা। আপনি এই সময়ের মধ্যে যেকোনো সময় হেল্প লাইনে কল করতে পারেন।

এখানে নগদ একাউন্টের হেল্প লাইনে কল করার কিছু টিপস দেওয়া হল:

  • আপনার নগদ একাউন্টের নাম্বার এবং পিন নম্বর হাতে রাখুন।
  • আপনার সমস্যাটি স্পষ্টভাবে ব্যাখ্যা করুন।
  • হেল্প লাইন অপারেটরের নির্দেশাবলী অনুসরণ করুন।

আশা করি এই তথ্যটি আপনার কাজে লাগবে।

নগদ একাউন্ট লক হলে করনীয়

নগদ একাউন্ট লক হলে করনীয়

নগদ একাউন্ট লক হলে করণীয়:

  • নগদ অ্যাপের মাধ্যমে পিন রিসেট করুন।

ধাপ 1: নগদ অ্যাপ খুলুন এবং “আমার অ্যাকাউন্ট” ট্যাবে যান।

ধাপ 2: “পিন পরিবর্তন করুন” বিকল্পটি নির্বাচন করুন।

ধাপ 3: আপনার নতুন পিন প্রবেশ করুন এবং “পরবর্তী” বোতামটি ক্লিক করুন।

ধাপ 4: আপনার নতুন পিনটি আরও একবার প্রবেশ করুন এবং “সাবমিট” বোতামটি ক্লিক করুন।

  • নগদ কাস্টমার কেয়ারের সাথে যোগাযোগ করুন।
আরো পড়ুনঃ  পাসপোর্ট করার নিয়ম ও খরচ ২০২৩

ধাপ 1: নগদ ওয়েবসাইটে যান এবং “কাস্টমার কেয়ার” বিভাগে যান।

ধাপ 2: “সরাসরি যোগাযোগ করুন” বিকল্পটি নির্বাচন করুন।

ধাপ 3: আপনার নাম, যোগাযোগের তথ্য এবং আপনার সমস্যার একটি বিবরণ প্রবেশ করুন।

ধাপ 4: “সাবমিট” বোতামটি ক্লিক করুন।

নগদ অ্যাকাউন্ট লক হওয়ার কারণ:

  • পিন ভুলে যাওয়া।
  • অতিরিক্ত চেষ্টা করার পরে।
  • অননুমোদিত অ্যাক্সেস থেকে সুরক্ষার জন্য।

নগদ অ্যাকাউন্ট লক হলে আপনার অ্যাকাউন্টে থাকা অর্থের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়। আপনার অ্যাকাউন্ট লক হওয়ার পরে, আপনি নগদ অ্যাপ ব্যবহার করে কোনো অর্থ প্রদান বা উত্তোলন করতে পারবেন না। আপনি নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে অনেক সময় একাউন্ট লক হয়ে যায়। নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় কি উপরের থেকে জানুন।

আপনার নগদ অ্যাকাউন্ট লক হওয়ার পরে, আপনাকে অবিলম্বে আপনার পিন রিসেট করা উচিত। আপনি নগদ অ্যাপের মাধ্যমে বা নগদ কাস্টমার কেয়ারের সাথে যোগাযোগ করে আপনার পিন রিসেট করতে পারেন।

কিভাবে নগদ একাউন্ট খুলব

নগদ একাউন্ট খোলার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন:

  1. আপনার স্মার্টফোনে Google Play Store বা App Store থেকে নগদ অ্যাপ ডাউনলোড করুন।
  2. অ্যাপটি খুলুন এবং “সাইন আপ” বাটনে ক্লিক করুন।
  3. আপনার নাম, মোবাইল নম্বর, ইমেল ঠিকানা এবং একটি পাসওয়ার্ড প্রবেশ করুন।
  4. আপনার পরিচয়পত্রের ছবি আপলোড করুন।
  5. আপনার মোবাইলে একটি OTP পাবেন, যা অ্যাপটিতে প্রবেশ করুন।
  6. আপনার একাউন্ট সফলভাবে তৈরি হয়ে যাবে।

নগদ একাউন্ট খোলার জন্য আপনার কাছে নিম্নলিখিত জিনিসগুলি প্রয়োজন হবে:

  • একটি সক্রিয় মোবাইল নম্বর
  • একটি বৈধ পরিচয়পত্র, যেমন জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি
  • একটি স্মার্টফোন
  • Google Play Store বা App Store অ্যাক্সেস

নগদ একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে কোনও চার্জ দিতে হবে না। একাউন্ট খোলার পর নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় কি তাও জেনে নেওয়া জরুরী। নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় কি উপরের থেকে জানুন।

নগদ একাউন্ট খোলার জন্য একটি বিকল্প পদ্ধতি হলো নগদ এজেন্টের মাধ্যমে। আপনার নিকটবর্তী নগদ এজেন্টের কাছে যান এবং তাদের কাছে নগদ একাউন্ট খোলার জন্য অনুরোধ করুন। এজেন্ট আপনাকে নগদ অ্যাপ ডাউনলোড করতে এবং আপনার একাউন্ট তৈরি করতে সাহায্য করবে। নগদ এজেন্টের মাধ্যমে যদি আ[পনি একাউন্ট খোলেন তাহলে তারাই আপনাকে নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় বলে দিবে।

নগদ অ্যাপটি ব্যবহার করে আপনি নিম্নলিখিত লেনদেন করতে পারবেন:

  • মোবাইল থেকে মোবাইলে টাকা পাঠানো
  • মোবাইল থেকে ব্যাংকে টাকা জমা করা
  • ব্যাংক থেকে মোবাইলে টাকা উত্তোলন
  • বিল পরিশোধ
  • টিকিট কেনা
  • শপিং
  • অনলাইন পেমেন্ট

নগদ অ্যাপটি ব্যবহার করা খুবই সহজ এবং নিরাপদ।

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম

নগদ একাউন্ট বন্ধ করার জন্য নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন:

  1. আপনার নগদ অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্স শূন্য করুন। আপনি আপনার ব্যালেন্স ক্যাশ আউট করে বা অন্য কোনও নগদ অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করে শূন্য করতে পারেন।
  2. নগদ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার জন্য একটি আবেদন করুন। আপনি নগদ অ্যাপের মাধ্যমে বা নগদ কাস্টমার কেয়ার সেন্টার থেকে একটি আবেদন করতে পারেন। নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় কি উপরের থেকে জানুন।
আরো পড়ুনঃ  পেনড্রাইভ থেকে উইন্ডোজ দেওয়ার নিয়ম

নগদ অ্যাপের মাধ্যমে আবেদন করার জন্য:

  1. নগদ অ্যাপ খুলুন।
  2. “অ্যাকাউন্টে যান”
  3. “একাউন্ট বন্ধ করুন” ট্যাপ করুন।
  4. আপনার ব্যক্তিগত তথ্য প্রদান করুন।
  5. “আবেদন করুন” ট্যাপ করুন।

নগদ কাস্টমার কেয়ার সেন্টার থেকে আবেদন করার জন্য:

  1. নগদ কাস্টমার কেয়ার সেন্টার নম্বরে কল করুন।
  2. আপনার পরিচয় প্রদান করুন।
  3. আপনার নগদ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার ইচ্ছা জানান।
  4. কাস্টমার কেয়ার এজেন্টের নির্দেশাবলী অনুসরণ করুন।

আপনার আবেদন অনুমোদিত হলে, আপনার নগদ অ্যাকাউন্ট 7-10 কার্যদিবসের মধ্যে বন্ধ হয়ে যাবে। আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গেলে, আপনি আর কোনও লেনদেন করতে পারবেন না। নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে একাউন্ট বন্ধ করার দরকার নেই। সেটি রিকোভার করার ট্রাই করুন।

নগদ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার সময় আপনার কাছে নিম্নলিখিত নথি থাকতে হবে:

  • আপনার নগদ অ্যাকাউন্টের জন্য ব্যবহৃত মোবাইল ফোন।
  • আপনার নগদ অ্যাকাউন্টের জন্য ব্যবহৃত সিম কার্ড।
  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র (NID) বা পাসপোর্ট।

আপনি যদি আপনার নগদ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার সময় এই নথিগুলি উপস্থাপন করতে সক্ষম না হন, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ হতে পারে না।

নগদ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন

নগদ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করার জন্য নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন:

অ্যাপের মাধ্যমে

  1. নগদ অ্যাপটি খুলুন।
  2. বামদিকের মেনু থেকে “আমার নগদ” নির্বাচন করুন।
  3. “একাউন্ট তথ্য” নির্বাচন করুন।
  4. “একাউন্ট নম্বর পরিবর্তন করুন” নির্বাচন করুন।
  5. আপনার নতুন একাউন্ট নম্বর লিখুন।
  6. আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের ছবি আপলোড করুন।
  7. “পরিবর্তন করুন” বোতামটি ক্লিক করুন।

নগদ সেবা পয়েন্টের মাধ্যমে

  1. আপনার নিকটস্থ নগদ সেবা পয়েন্টে যান।
  2. একটি নগদ সেবা কর্মচারীর সাথে যোগাযোগ করুন।
  3. আপনার বর্তমান একাউন্ট নম্বর এবং নতুন একাউন্ট নম্বর জানান।
  4. আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি এবং একটি ফটোকপি জমা দিন।
  5. নগদ সেবা কর্মচারী আপনার একাউন্ট নম্বর পরিবর্তন করবেন।

একাউন্ট নম্বর পরিবর্তনের জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র

  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি এবং একটি ফটোকপি।

একাউন্ট নম্বর পরিবর্তনের সময়সীমা

একাউন্ট নম্বর পরিবর্তন করার জন্য সাধারণত 24 ঘন্টা সময় লাগে।

নগদ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তনের সুবিধা

  • আপনি আপনার পছন্দের একাউন্ট নম্বর পেতে পারেন।
  • আপনার একাউন্টের গোপনীয়তা রক্ষা করা যেতে পারে।

নগদ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তনের অসুবিধা

  • নতুন একাউন্ট নম্বর মনে রাখা কঠিন হতে পারে।
  • আপনার পরিচিতদের সাথে নতুন একাউন্ট নম্বর শেয়ার করতে হবে।

উপসংহার

নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে বেশ কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। যেমন, আপনার একাউন্ট থেকে অর্থ উত্তোলন, টাকা পাঠানো বা অন্য কোনো লেনদেন করতে পারবেন না। তাই, নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মনে করার চেষ্টা করুন। উপরের সম্পূর্ণ পোস্ট থেকে আপনারা নগদ একাউন্ট কোড ভুলে গেলে করণীয় কি তা জেনে গেছেন। আপনাদের আর কোনো কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ভোটার আইডি কার্ড চেক

Leave a Comment