দোয়া কুনুত মুখস্ত করার সহজ পদ্ধতি

দোয়া কুনুত (আরবি: القنوت‎‎) আল্লাহর নবী (সাঃ) বিতরের নামাযে দোয়া কুনুত বলতেন। বিতের সালাতের শেষ রাকাতের এক/তিন/পাঁচ/সাত/এগারো রাকাত রুকুতে যাওয়ার আগে বা রুকু থেকে উঠে দুহাত উঁচু করে বা আঁকড়ে ধরে দোয়া কুনুত পাঠ করতে হবে। আজকে আমরা দোয়া কুনুত মুখস্ত করার সহজ পদ্ধতি সম্পর্কে জানবো।

দোয়া কুনুত আরবী উচ্চারণ

اللّهُمَّ إِنَّا نَسْتَعِينُكَ وَنَسْتَغْفِرُكَ وَنُؤْمِنُ بِكَ وَنَتَوَكَّلُ عَلَيْكَ وَنُثْنِيْ عَلَيْكَ الْخَيْرَ وَنَشْكُرُكَ وَلاَ نَكْفُرُكَ، وَنَخْلَعُ وَنَتْرُكُ مَنْ يَّفْجُرُكَ، اللّهُمَّ إِيَّاكَ نَعْبُدُ، وَلَكَ نُصَلِّيْ وَنَسْجُدُ، وَإِلَيْكَ نَسْعٰى وَنَحْفِدُ، نَرْجُو رَحْمَتَكَ وَنَخْشٰى عَذَابَكَ، إِنَّ عَذَابَكَ بِالْكُفَّارِ مُلْحِقٌ

দোয়া কুনুত বাংলা উচ্চারণ

আল্লাহুম্মা ইন্না নাস্‌তাঈ’নুকা, ওয়া নাস্‌তাগ্‌ফিরুকা, ওয়া নু’’মিনু বিকা, ওয়া নাতাওয়াক্কালু ‘আলাইকা, ওয়া নুছনী আলাইকাল খাইর। ওয়া নাশ কুরুকা, ওয়ালা নাকফুরুকা, ওয়া নাখলাউ’, ওয়া নাতরুকু মাঁই ইয়াফজুরুকা। আল্লাহুম্মা ইয়্যাকা না’বুদু ওয়া লাকানুসল্লী, ওয়া নাসজুদু, ওয়া ইলাইকা নাস’আ, – ওয়া নাহফিদু, ওয়া নারজু রাহমাতাকা, ওয়া নাখশা – আযাবাকা, ইন্না আযাবাকা বিল কুফ্‌ফারি মুলহিক্ব।

আরো পড়ুনঃ  কোরআন থেকে মেয়েদের নাম

দোয়া কুনুত ছবি

দোয়া কুনুত ছবি

দোয়া কুনুত বাংলা অর্থ

আল্লাহু আকবার! আমরা আপনার সাহায্য এবং শুধুমাত্র আপনার ক্ষমা চাই. আমরা আপনার উপর বিশ্বাস করি এবং বিশ্বাস করি, আমরা আপনার প্রশংসা করি, আমরা আপনাকে ধন্যবাদ জানাই, আমরা আপনার প্রতি অকৃতজ্ঞ নই, যারা আপনার অবাধ্য হয় তাদের আমরা পরিত্যাগ করি এবং তাদের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করি। আল্লাহু আকবার! আমরা তোমারই ইবাদত করি, তোমার কাছে প্রার্থনা করি এবং তোমাকে সিজদা করি; আমরা তোমার দিকে ছুটে যাই, তোমার আদেশ মেনে নিতে প্রস্তুত; আমরা আপনার দয়ার আশা করি; এবং আমরা আপনার ক্রোধ ভয় করি। তোমার গজব নিঃসন্দেহে কাফের সমাজের উপর পড়বে।

দোয়া কুনুত pdf

pdf

দোয়া কুনুত মুখস্ত করার সহজ পদ্ধতি

দোয়া কুনুত মুখস্ত করার সহজ পদ্ধতি অনেক আছে। এখানে কয়েকটি পদ্ধতি দেওয়া হল যেইগুলির মাধ্যমে আপনি দোয়া কুনুত মুখস্ত করার সহজ পদ্ধতি রপ্ত করতে পারবেন।

  • অনেকবার পড়া: দোয়া কুনুত মুখস্থ করার সবচেয়ে সহজ উপায় হল এটিকে অনেকবার পড়া। আপনি এটি একা পড়তে পারেন, বা আপনার বন্ধু বা পরিবারের সদস্যদের সাথে পড়তে পারেন। আপনি এটিকে একটি রেকর্ডিংয়ে রেকর্ড করতে পারেন এবং এটি শুনতে পারেন।
  • অর্থ বুঝতে চেষ্টা করা: দোয়া কুনুত এর অর্থ বুঝতে চেষ্টা করলে এটি মুখস্থ করা সহজ হবে। আপনি একটি বাংলা অনুবাদ দেখতে পারেন, বা একজন অভিজ্ঞ ব্যক্তির কাছ থেকে এর অর্থ ব্যাখ্যা করতে বলতে পারেন।
  • ছন্দ ব্যবহার করা: দোয়া কুনুত এর ছন্দ ব্যবহার করলে এটি মুখস্থ করা সহজ হবে। আপনি একটি ছড়া বা কবিতা তৈরি করতে পারেন যা দোয়া কুনুত এর কথাগুলিকে স্মরণ করিয়ে দেবে।
  • চিত্র বা স্মৃতি ব্যবহার করা: দোয়া কুনুত এর কথাগুলিকে চিত্র বা স্মৃতি দিয়ে সংযুক্ত করলে এটি মুখস্থ করা সহজ হবে। আপনি একটি দৃশ্য বা ঘটনা কল্পনা করতে পারেন যা দোয়া কুনুত এর কথাগুলিকে মনে করিয়ে দেয়।
আরো পড়ুনঃ  জন্মদিনের শুভেচ্ছা ও দোয়া

এখানে একটি সহজ পদ্ধতি দেওয়া হল:

  1. দোয়া কুনুত এর প্রথম বাক্যটি মুখস্থ করুন।
  2. প্রথম বাক্যটি মনে রাখতে পারলে, দ্বিতীয় বাক্যটি মুখস্থ করুন।
  3. প্রথম দুটি বাক্য মনে রাখতে পারলে, তৃতীয় বাক্যটি মুখস্থ করুন।
  4. এভাবে ধীরে ধীরে সমস্ত বাক্য মুখস্থ করুন।

আপনি যদি এই পদ্ধতিটি অনুসরণ করেন, তাহলে আপনি কিছুদিনের মধ্যেই দোয়া কুনুত মুখস্থ করতে পারবেন।

এখানে কিছু অতিরিক্ত টিপস দেওয়া হল:

  • প্রতিদিন দোয়া কুনুত পড়ুন। যত বেশি আপনি দোয়া কুনুত পড়বেন, ততই এটি মুখস্থ করা সহজ হবে।
  • ধৈর্য ধরুন। দোয়া কুনুত মুখস্থ করা সময়সাপেক্ষ প্রক্রিয়া। যদি আপনি প্রথমবারেই এটি মুখস্থ করতে না পারেন, তাহলে হতাশ হবেন না। ধৈর্য ধরুন এবং চেষ্টা চালিয়ে যান।
আরো পড়ুনঃ  সেহরির দোয়া বাংলা উচ্চারণ

আল্লাহ আপনাকে দোয়া কুনুত মুখস্থ করার জন্য সাহায্য করুন।

দোয়া কুনুত কোন সূরার অংশ

দোয়া কুনুত কোন সূরার অংশ

দোয়া কুনুত পবিত্র কুরআনের কোনো সূরায় উপস্থিত হয় না এবং কোথাও উল্লেখ করা হয় না। এটি মহানবী (সা.)-এর সুন্নত।

দোয়া কুনুত এর গুরুত্ব ও ফজিলত

দোয়া কুনুত হলো সালাতুল বিতিরের শেষ রাকাতে সালাম ফিরানোর আগে পড়া একটি অতিরিক্ত দোয়া। এটি নবী মুহাম্মদ (সাঃ)-এর সুন্নাত।

দোয়া কুনুতের গুরুত্ব ও ফজিলত নিম্নরূপ:

  • এটি সালাতুল বিতিরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।
  • এটি আল্লাহর কাছে সাহায্য ও দয়া প্রার্থনার একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম।
  • এটি আল্লাহর সাথে মুমিনের সম্পর্ককে আরও দৃঢ় করে।
  • এটি মুমিনের অন্তরে আল্লাহর ভয় ও আশা জাগ্রত করে।

দোয়া কুনুত কখন পড়তে হয়?

দোয়া কুনুত বিতরের নামাজের সময় উচ্চারিত হয়, সন্ধ্যা ইশার নামাজের সময় নামাজের শেষ চক্র।

কুনুত শব্দের আরবি অর্থ কি

শাস্ত্রীয় আরবি ভাষায়, “কুনুত” (আরবি: القنوت) মানে “আনুগত্য করা” বা “দাঁড়ানোর কাজ”। দু’আ’ (আরবি: دعاء ‘) শব্দটি আরবি হওয়ায় দু’আ’ কুনুত শব্দটি মাঝে মাঝে ব্যবহৃত হয়। নম্রতা, আনুগত্য এবং উত্সর্গ সহ কুনুতের বিভিন্ন ভাষাগত অর্থ রয়েছে।

উপসংহার

আমি আশা করছি এই পোস্ট থেকে আপনি দোয়া কুনুত মুখস্ত করার সহজ পদ্ধতি জেনে গেছেন। তাই তাড়াতাড়ি করে দোয়া কুনুত মুখস্ত করার সহজ পদ্ধতি নিজের মধ্যে রপ্ত করে নিন। যাতে করে আপনি নামাজের মধ্যে মুখস্থ দোয়া কুনুত বলতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ সেহরির দোয়া বাংলা উচ্চারণ

Leave a Comment